বাজেটের মধ্যে মধ্যবিত্তের জন্য এটাই সেরা ফোন

সম্প্রতি Vivo S সিরিজে নতুন স্মার্টফোন বাজারে এসেছে। স্টাইলের কথা মাথায় রেখে Vivo S1 Pro লঞ্চ হলেও এই ফোনে থাকছে একাধিক আকর্ষণীয় স্পেসিফিকেশন। Vivo S1 Pro ফোনে দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশনের সঙ্গেই থাকছে সম্পূর্ণ নতুন ডিজাইন।

২৭ হাজার টাকা মূল্যে Realme X2, Redmi K20 ও নতুন Oppo F15 কে টেক্কা দিতে পারবে এই স্মার্টফোন? পড়ুন Vivo S1 Pro রিভিউ।

Vivo S1 Pro স্পেসিফিকেশন
Vivo S1 Pro ফোনে থাকছে একটি 6.38 ইঞ্চি FHD+ Super AMOLED ডিসপ্লে। ফোনের ভিতরে থাকছে Snapdragon 665 চিপসেট, 8GB RAM আর 128GB স্টোরেজ।

Vivo S1 Pro ফোনের পিছনে চারটি ক্যামেরা থাকছে। এই ক্যামেরায় একটি 48 মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ব্যবহার করেছে Vivo। সাথে থাকছে 8 মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা একটি 2 মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা আর একটি 2 মেগাপিক্সেল ডেপ্ত সেন্সর। সেলফি তোলার জন্য Vivo S1 Pro ফোনে থাকছে একটি 32 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

কানেক্টিভিটির জন্য Vivo S1 Pro ফোনে থাকছে 4G LTE, ডুয়াল ব্যান্ড Wi-Fi, Bluetooth v5.0, GPS/ A-GPS, FM রেডিও আর USB Type-C পোর্ট। ফোনের ভিতরে থাকছে একটি 4,500 mAh ব্যাটারি। সাথে থাকছে 18W ডুয়াল ইঞ্জিন ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট। নতুন এই ফোনের ওজন 186.7 গ্রাম।

Vivo S1 Pro পারফর্মেন্স ও ব্যাটারি লাইফ
রোজকার ব্যবহারে Vivo S1 Pro তে কোন সমস্যা চোখে পড়বে না। এই ফোনের ডিজাইন এই দামে যে কোন স্মার্টফোনের থেকে আলাদা। এই ফোনে রয়েছে একটি রঙিন ও উজ্জ্বল AMOLED ডিসপ্লে। যদিও এই ফোনে হাই গ্রাফিক্স গেম খেলার সময় Snapdragon 665 চিপসেট হোঁচট খাবে।

Vivo S1 Pro ফোনে রয়েছেন একটি 4,500 mAh ব্যাটারি। এক চার্জে সহজেই দেড় দিন চলবে এই স্মার্টফোন। আমাদের HD ভিডিও লুপ টেস্টে 17 ঘণ্টা 7 মিনিট চলেছে এই স্মার্টফোন। এই ফোনে রয়েছে ডুয়াল ইঞ্জিন ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট। যদিও ফোনের সঙ্গে পাওয়া চার্জর ব্যবহার করে এই ফোন দ্রুত চার্জ করা যাবে না। বাক্সের চার্জর ব্যবহার করে 30 মিনিটে 31 শতাংশ চার্জ হয়েছে Vivo S1 Pro। এক ঘণ্টায় এই ফোন 61 শতাংশ চার্জ হয়েছে।