সাকিব-তামিমদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে বিসিবি?

ক্রিকেটারদের আন্দোলনে নমনীয়তার বদলে কঠোর অবস্থানেই দাঁড়িয়েছে বিসিবি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আজ (মঙ্গলবার) এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে আভাস দিয়েছেন, আন্দোলনের পরিকল্পনাকারীদের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাওয়ার।

আজ সকাল থেকেই মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম সরগরম ক্রিকেটারদের ধর্মঘট এবং আলটিমেটাম নিয়ে। দুপুরের দিকে জরুরি বৈঠকে বসেন বিসিবি পরিচালকরা। এরপরই বিকেল সোয়া ৩টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করতে আসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেন পাপন। তার কথা হলো, এসব দাবির বেশিরভাগেরই কোনো যৌক্তিকতা নেই। এগুলো গভীর কোনো ষড়যন্ত্রের অংশ। এ ষড়যন্ত্রের পেছনের শক্তি খুঁজে বের করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিলেন বিসিবি প্রধান।

পাপন বলেন, এই আন্দোলনটা মূলত কে কে করেছে, কেন করেছে আমি সবই জানি। আপনারাও জানেন। দু-একদিনের মধ্যে এটা অটো বের হবে। আপনাদের কিছুই করতে হবে না। একটু অপেক্ষা করুন।

এই আন্দোলনে দু-একজন ক্রিকেটার আলাদাভাবে জড়িত বলে মনে করছেন পাপন। বাকিরা না বুঝেই এই আন্দোলনে যোগ দিয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, সামনে ভারত সফর। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে ক্যাম্প ও খেলা বয়কট করা পরিকল্পিত। এছাড়া আন্দোলনে দু-একজন ছাড়া বাকিরা জেনেশুনে আসেননি। মূল দু-একজনকে খুঁজে বের করা হবে।

এদিকে, একটি সূত্র জানিয়েছে এই আন্দোলনের পেছনে যাদের মদদ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বিসিবি। সাজা আসতে পারে আন্দোলনে নেতৃত্ব দানকারীদের ওপর।