ইউনাইটেডকে হারিয়ে শিরোপার আরও কাছে লিভারপুল

ঘরের মাঠে লিভারপুলের জয়ের ব্যবধানটা অবশ্য আরও বড় হতে পারত। কিন্তু পুরো ম্যাচে গোলের একাধিক সুযোগ হাতছাড়া করায় ব্যবধানটা বড় হয় নি। এবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে একমাত্র ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড পয়েন্ট কেড়ে নিতে পেরেছিল লিভারপুলের। গত অক্টোবরে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুই দলের ম্যাচটা শেষ হয়েছিল ১-১ গোলে। অ্যানফিল্ডে ফিরতি ম্যাচে অবশ্য ঠিকই জয় তুলে নিয়েছে লিভারপুল।

রবিবার (১৯ জানুয়ারি) ইউনাইটেডকে ২-০ গোলে হারিয়ে ৩০ বছরের লিগ শিরোপা খরা কাটানোর পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেছে ইয়ুর্গেন ক্লবের দল।

প্রথমার্ধের ১৪ মিনিটেই লিড নিয়েছিল স্বাগতিকরা। ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ডের কর্নারে হেডে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক। ২৬ মিনিটে লিভারপুলের ব্যবধানটা দ্বিগুণ হতে হতেও হয়নি। ইউনাইটেডের জালে বল পাঠিয়েছিলেন রবার্তো ফিরমিনো। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায়, আগমুহূর্তে ইউনাইটেড গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়াকে ফাউল করেছিলেন ফন ডাইক। ভিএআরের সাহায্যে ফাউলের বাঁশি বাজান রেফারি।

বিরতির পর ৪৮ মিনিটে অল্পের জন্য আরেকটি গোল খাওয়া থেকে বেঁচে যায় ইউনাইটেড। জর্ডান হেন্ডারসনের জোরালো শট ডি গিয়ার হাতে লেগে প্রতিহত হয় বারপোস্টে।

৫৮ মিনিটে ভালো সুযোগ পেয়েছিল ইউনাইটেড। কিন্তু 'রেড ডেভিল' দের হয়ে সুযোগটি কাজে লাগাতে পারেননি অ্যান্থনি মার্শিয়াল। গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারকে একা পেয়েও তিনি বাইরে দিয়ে বল মারেন।

অক্টোবরে ইউনাইটেডের মাঠে খেলেননি মোহাম্মদ সালাহ। যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে সেই সালাহ সব অনিশ্চয়তার ইতি টানেন দারুণ এক গোল করে। ইউনাইটেডের কর্নার নিয়ন্ত্রণে নিয়ে উঁচু করে সালাহকে মাঝমাঠে বল বাড়িয়েছিলেন অ্যালিসন। সঙ্গে লেগে থাকা এক খেলোয়াড়কে পেছনে ফেলে বল জালে পাঠান মিশরীয় ফরোয়ার্ড।

এই জয়ে ১৬ পয়েন্ট এগিয়ে গেছে লিভারপুল। ২২ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৬৪। এক ম্যাচ বেশি খেলে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি।