লাল কার্ডের পরও ড্রতে এগিয়ে বার্সেলোনা

নাপোলির বিপক্ষে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর ম্যাচে লাল কার্ড পাওয়া সত্ত্বেও কোনোমতে ড্র করতে সক্ষম হয়েছে বার্সেলোনা। উপরি হিসেবে তারা পেয়েছে একটি অ্যাওয়ে গোল। পরবর্তী লেগে নিজেদের মাঠে কোনোমতে গোল শূন্য ড্র করতে পারলেই শেষ আটে তারা।

যেকোনো ফুটবল দলের স্কোয়াড হয় সাধারণত ১৮ জনের। কিন্তু বার্সেলোনা কোচ কিকে সেতিয়েনের কাছে মাঠে নামার মতো মোট খেলোয়াড়ই ছিলেন কেবল ১৪ জন।
মঙ্গলবার রাতের ম্যাচটিতে প্রায় পুরোটা সময় ধরেই জমাট রক্ষণ রেখে খেলেছে নাপোলি। তবে প্রতি আক্রমণে উঠে বার্সেলোনার ডিফেন্ডারদের কঠিন সময় উপহার দিতে কোনো ভুল করেনি স্বাগতিকরা।

ম্যাচের ৩০ মিনিটের সময় বার্সা ডিফেন্ডার জুনিয়র ফিরপোর ভুলে বল পেয়ে যান পিটার জিলিনিস্কি। তিনি সময় নষ্ট না করে পাস বাড়িয়ে দেন ড্রাইস মার্টিনসের উদ্দেশ্যে। বুলেট গতির শটে টের স্টেগানকে পরাস্ত করেন মার্টিনস। একইসঙ্গে উঠে যান নাপোলির হয়ে সর্বোচ্চ গোলস্কোরারের তালিকার শীর্ষে। তার সমান ১২১ গোল রয়েছে মারেক হামসিকেরও।

লিড থাকায় রক্ষণাত্মক ফুটবলের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয় নাপোলি। দ্বিতীয়ার্ধে তাদের ১০ খেলোয়াড় মিলে শুরু করেন ডিফেন্ডিং। যার ফলে আবার মাঝমাঠে জায়গা পেয়ে বার্সেলোনা। এ সুযোগটিই কাজে লাগায় সেতিয়েনের শিষ্যরা।

ম্যাচের ৫৭ মিনিটে নিজেদের মধ্যে দারুণ বোঝাপড়ার মাধ্যমে নেলসন সেমেডুর উদ্দেশ্যে বুদ্ধিদীপ্ত পাস এগিয়ে দেন সার্জিও বুসকেটস। এরপর অবশ্য দুইটি সহজ সুযোগ এসেছিল নাপোলির। তবে ওইযে গোল পাহারায় একজন স্টেগান আছেন। মূলত তার দারুণ দুইটি সেভেই বার্সা ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে সক্ষম হয়।