নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করলেন সাকিব


দিন তিনেক আগেই টি-২০ ক্রিকেটে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন সাকিব আল হাসান। লাসিথ মালিঙ্গাকে টপকে তিনি এখন টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়া বোলার। সে বিশ্বরেকর্ডের রেশ না কাটতেই গড়লেন আরও একটি বিশ্বরেকর্ড। যদিও রেকর্ডটা একা তার নয়। ভাগ করে নিয়ে হচ্ছে শহীদ আফ্রিদির সাথে।

বিশ্বকাপ শুরুর আগেই হাতছানি দিচ্ছিল রেকর্ডটি, প্রয়োজন ছিলো ১০টি উইকেট। প্রথম পর্বের তিন ম্যাচেই সেটি প্রায় করে ফেলেছেন সাকিব আল হাসান। তবু বাকি রইলো ১টি উইকেট। প্রথম তিন ম্যাচে নয় উইকেট নিয়ে এখন আফ্রিদির সমানে বসেছেন সাকিব।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগের ছয় আসরে সাকিবের উইকেটসংখ্যা ছিলো ৩০টি। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির তালিকায় তিনি ছিলেন ছয় নম্বরে। সেখান থেকে শীর্ষে উঠতে মাত্র তিনটি ম্যাচ নিলেন সাকিব। এই তিন ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে তিনিই এখন বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি।

তবে সমান ৩৯টি উইকেট রয়েছে পাকিস্তানের সাবেক তারকা অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদিরও। তিনি ৩৪ ইনিংস বোলিং করে নিয়েছেন এই ৩৯ উইকেট। সেখানে সাকিবের ৩৯ উইকেট নিতে লেগেছে মাত্র ২৭ ইনিংস। এছাড়া ইকোনমি এবং গড়েও আফ্রিদির চেয়ে এগিয়ে সাকিব।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি

১/ সাকিব আল হাসান - ২৭ ইনিংসে ৩৯ উইকেট, সেরা বোলিং ৪/৯
২/ শহিদ আফ্রিদি - ৩৪ ইনিংসে ৩৯ উইকেট, সেরা বোলিং ৪/১১
৩/ লাসিথ মালিঙ্গা - ৩১ ইনিংসে ৩৮ উইকেট, সেরা বোলিং ৫/৩১
৪/ সাইদ আজমল - ২৩ ম্যাচে ৩৬ উইকেট, সেরা বোলিং ৪/১৯
৫/ অজন্থা মেন্ডিস - ২১ ম্যাচে ৩৫ উইকেট, সেরা বোলিং ৬/৮