ঘরের মাঠেও হতশ্রী ব্যাটিং

বিশ্বকাপের ব্যর্থতার পর ঘরের মাঠেও ব্যর্থ বাংলাদেশি ব্যাটাররা। টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ তে ২০ ওভার খেলে বাংলাদেশ তুলেছে মাত্র ১২৭ রান। পাকিস্তানের জিততে চাই ১২৮ রান।

শুক্রবার মিরপুরে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশ শরুতেই পড়ে বিপর্যয়ে। মাত্র ১৫ রানেই তারা হারায় তিন উইকেট। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে মাত্র ১ রান করা মোহাম্মদ নাঈম ক্যাচ তুলে দেন মোহাম্মদ রিজওয়ানের কাছে। হাসান আলির অফ কাটারে পরাস্ত হন নাঈম।

পরের ওভারে আঘাত হানেন ওয়াসিম জুনিয়র। অভিষিক্ত সাইফ ৮ বল খেলে ১ রান করে ফেরেন সাজঘরে। এ ধাক্কা সামাল না দিতেই অপ্রেয়োজনীয় এক শট খেলে নাজমুল হাসান শান্ত। ১৪ বলে তিনি করেন ৭ রান। এবারও শিকারি ওয়াসিম।

এরপর দায়িত্ব নিজের কাধে তুলে নেন আফিফ হাসান। অধিনায়খ রিয়াদকে নিয়ে চেষ্টা করেন জুটি গড়ার। তাদের ব্যাটে যখন স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ তখনই হতাশ করেন রিয়াদ। নওয়াজের বলে বোল্ড হন তিনি। তখন দলীয় রান ছিল ৪০। রিয়াদ করেন ১১ বলে ৬ রান।

এরপর মাঠে আসা নুরুল হাসান আফিফের সাথে মিলে গড়েন ২১ রানের জুটি। শাদাব খানের বলে কাট করতে গিয়ে কিপারের হাতে ধরা খাওয়া আফিফ ৩৪ বলে ৩৬ করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি।

তবে মাঠে নতুন আসা মাহাদিকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেন সোহান। এই জুটি যখন ভাঙে তখন বাংলাদেশের স্কোর ১৭ ওভারে ৯৬ রান। সোহান ফেরেন ২২ বলে ২৮ রান করে। শেষ পর্যন্ত মাহাদিন ২০ বলে ৩০ রানের ইনিংসে ভর করে ১২৭ রান তুলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। ৩ বলে ৮ রান করেন তাসকিন আহমেদ।

হাসান আলি ২২ রান খরচায় নেন ৩ উইকেট, ওয়াসিম জুনিয়র ২৪ রানে নেন ২ উইকেট।