দুবাইয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেবে আর্জেন্টিনা

কাতার যদি বিশ্বকাপের আয়োজক না হতো, তাহলে এরই মধ্যে এবারের বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব প্রায় শেষের দিকে চলে আসতো। কারণ, সাধারণত বিশ্বকাপ শুরু হয় জুনের ১০ তারিখ। শেষ হয় জুলাইর ১০ তারিখে।


কিন্তু এবারের আয়োজক মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতার। এই সময়টায় কাতারে এতটাই খরতাপ যে, সেখানে যেন খই ফুটবে। তীব্র গরম থেকে বাঁচার জন্য বিশ্বকাপকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে শীতকালে। যে কারণে, এবারের বিশ্বকাপ শুরু হবে ২১ নভেম্বর এবং শেষ হবে ১৮ ডিসেম্বর।

প্রায় ৫ মাস পিছিয়ে দেয়ার কারণে প্রস্তুতির জন্যও বেশ ভালো সময় পাচ্ছে প্রতিযোগী দেশগুলো। এমনিতেই বিশ্বকাপ এলে অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দেশ আয়োজক দেশের আশপাশে প্রস্তুতি ক্যাম্প তৈরি করে। বেশ কিছুদিন একসঙ্গে অনুশীলন করে এরপর নামে মূল প্রতিযোগিতায়। যেখানে ব্যতিক্রম নয় ব্রাজিল-আর্জন্টিনার মত দেশগুলোও।

দু’বারের বিশ্বজয়ী আর্জেন্টিনা ফুটবল দল বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ক্যাম্প করবে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ আরব আমিরাতের অন্যতম শহর আবুধাবিতে। বুয়েন্স আয়ার্স টাইমস জানিয়েছে এ সংবাদ।

মূলতঃ আবুধাবির সঙ্গে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন চার বছর মেয়াদি একটি কৌশলগত চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। আবুধাবি স্পোর্টস কাউন্সিলের (এডিএসসি) সঙ্গে সাক্ষরিত এই চুক্তি অনুসারে আর্জেন্টিনার অন্যতম সেরা ঘরোয়া টুর্নামেন্ট সুপারকোপা ডি আর্জেন্টিনা’র ফাইনাল ম্যাচটি টানা চার বছর অনুষ্ঠিত হবে আরব আমিরাতের এই শহরে।

এ চুক্তির আওতায় আবুধাবি স্পোর্টস কাউন্সিলের বিশেষ ব্যবস্থাপনায় আগামী নভেম্বরে বিশ্বকাপ শুরুর আগে শহরটিতে অনুশীলন ক্যাম্প আয়োজন করবে লিওনেল মেসিরা এবং আরব আমিরাত ফুটবল দলের বিপক্ষে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবেন তারা।

৩৫ বছর বয়সী মেসির ক্ষেত্রে এবারই সম্ভবত শেষ বিশ্বকাপ এবং এবারই শেষ সুযোগ তার বিশ্বকাপ জয়ের জন্য। সুতরাং, আরব আমিরাতে প্রস্তুতি নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের আবহাওয়া এবং পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারলে বিশ্বকাপেও ভালো করার সম্ভাবনা তৈরি হবে। ২০১৪ বিশ্বকাপে ফাইনাল খেললেও জার্মানির কাছে হেরে শিরোপা জয় করা সম্ভব হয়নি মেসির।