এশিয়া কাপের একই গ্রুপে ভারত-পাকিস্তান, সহজ গ্রুপে বাংলাদেশ

সেপ্টেম্বরে ওয়ানডে ফরম্যাটে মাঠে গড়াবে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ। এক টুইট বার্তায় নিশ্চিত করেছে এসিসির সভাপতি জয় শাহ। সেভ সাথে কোন গ্রুপে কারা খেলবে সেটিও প্রকাশ করেছেন এসিসির সভাপতি।


এবারের এশিয়া কাপে একই গ্রুপে খেলবে ভারত ও পাকিস্তান। গ্রুপ-১ এ ভারত ও পাকিস্তানের সাথে খেলবে বাছাইপর্ব থেকে কোয়ালিফাই করা দল৷ অন্যদিকে গ্রুপ-২ এ আছে বাংলাদেশ। টাইগারদের প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকবে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান।


৬ দল দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবো প্রথম রাউন্ড। এরপর সেরা ৪ দল খেলবে সুপার-৪ এ। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে মুখোমুখি হবে ৪ দল। সেখান থেকে সেরা ২ দল খেলবে ফাইনালে।


এদিকে এবারের এশিয়া কাপ হওয়ার কথা ছিল পাকিস্তানে। কিন্তু টুর্নামেন্টটি খেলতে প্রতিবেশী দেশটিতে যাবে না ভারত। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড-বিসিসিআই সচিব ও এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) সভাপতি জয় শাহ চান, এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের আসরটি হোক কোনো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে।


কয়েক মাস আগে মুম্বাইয়ে বিসিসিআইয়ের বার্ষিক সাধারণ সভার পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জয় শাহ বলেছিলেন, এসিসিতে আলোচনার পরই এশিয়া কাপ নিয়ে চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, ‘২০২৩ এশিয়া কাপ নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হবে। আমি এসিসি সভাপতি হিসেবে এটা বলছি। আমরা (ভারত) সেখানে (পাকিস্তানে) যেতে পারি না, তারা এখানে আসতে পারে না। অতীতেও এশিয়া কাপ নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হয়েছে।’


রাজনৈতিক বৈরিতার কারণে ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক লড়াই বন্ধ ৯ বছর ধরে। সবশেষ ২০১৩ সালে ভারতে দুই টি-টোয়েন্টি ও তিন ওয়ানডের ছোট্ট সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান। দুই দেশের সবশেষ টেস্ট সিরিজ হয়েছে ২০০৭ সালে, সেবারও ভারতে গিয়েছিল পাকিস্তান। আর ভারত সবশেষ পাকিস্তান সফর করেছে ২০০৮ এশিয়া কাপে। পাকিস্তানে তারা সবশেষ টেস্ট খেলেছে ২০০৬ সালে।


২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে সবশেষ ভারত সফর করেছিল পাকিস্তান। এখন শুধুমাত্র এসিসি ও আইসিসি টুর্নামেন্টেই দেখা হয় দুই দেশের। সবশেষ তাদের দেখা হয়েছিল গত আগস্ট-সেপ্টেম্বরে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে। আগামী রোববার মেলবোর্নে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল।