বাবরি মসজিদ মামলার রায় আজ, ১৪৪ ধারা জারি

আলোচিত অযোধ্যা মামলার রায় দিতে চলেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। 

লাগাতার ৪০ দিন শুনানি শেষে স্থানীয় সময় শনিবার (৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ এই মামলার রায় দেবে।

এর মাধ্যমে বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির বিতর্কের অবসান হতে যাচ্ছে। কয়েক শতক ধরে  চলে আসা বিতর্কটি ১৯৯২ সালে নতুন মোড় নেয়। ওই বছর কট্টর হিন্দুরা বাবরি মসজিদ ভেঙে ফেলার পর হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গায় কমবেশি ২ হাজার মানুষ নিহত হয়।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, এই রায়কে ঘিরে যাতে কোনো রকম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সে কারণে উত্তর প্রদেশ জুড়ে কড়া নিরাপত্তা জারি করেছে রাজ্য সরকার। জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সকলকে শান্তি বজায় রাখা আহ্বান জানিয়ে শুক্রবার রাতে টুইট করেন। 

তিনি বলেন, আগামীকাল অযোধ্যা মামলার রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। গত কয়েক মাস ধরে এই মামলার লাগাতার শুনানি চলছিল। গোটা দেশের নজর ছিল এই মামলার ওপর। সমাজের সকল স্তরের মানুষের কাছে আহ্বান শান্তির পরিবেশ বজায় রাখার চেষ্টা করবেন।

আরেকটি টুইটে তিনি বলেন, অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্ট যা রায় দেবে, তাতে কারো হার-জিত হবে না। দেশবাসীর কাছে আবেদন, এই মামলায় যা রায়ই আসুক, দেশের পরম্পরা অনুযায়ী শান্তি বজায় রাখাটাই আমাদের মূল কর্তব্য হবে।

১৭ নভেম্বর ভারতের প্রধান বিচারপতির পদ থেকে অবসর নিচ্ছেন রঞ্জন গগৈ। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, অবসর নেওয়ার আগেই তিনি অযোধ্যার বিতর্কিত জমি মামলার রায় দিয়ে যেতে চান। সেই অনুযায়ী তার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে প্রতিদিন শুনানি হয়েছে।

এর আগে ১৬ অক্টোবর এই মামলার শুনানির পর রায় সংরক্ষিত রাখেন প্রধান বিচারপতি। শুক্রবারই উত্তর প্রদেশ পুলিশ-প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধান বিচারপতি। বৈঠকে ছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজেন্দ্র কুমার ও ডিজি ওমপ্রকাশ সিংহ।