কাশ্মীর নিয়ে উত্তাল ভারতের সংসদ

শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনেই কার্যত ঝড় উঠেছে ভারতের সংসদে। কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপি সরকারকে কোণঠাসা করতে একযোগে বিরোধিতায় সরব হয়েছে বিরোধীরা।

কংগ্রেস, ন্যাশনাল কনফারেন্স ও ডিএমকে অধিবেশন শুরু হতেই ওয়েলে নেমে হইচই শুরু করে। তাঁদের অভিযোগ, ৩৭০ ধারা বিলোপের পর ১০০ দিন কেটে গিয়েছে, এখনও কাশ্মীর অবরুদ্ধ। অধিবেশন চলাকালীনই ওয়াক-আউট করে শিবসেনা।

সংসদে মুলতুবি প্রস্তাব আনে কংগ্রেস, তৃণমূল ও শিবসেনা। কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা চেয়ে প্রস্তাব আনে কংগ্রেস। মহারাষ্ট্রে অতিবৃষ্টির জেরে ফসলের ক্ষতি নিয়ে আলোচনা চেয়ে প্রস্তাব আনে শিবসেনা।

কাশ্মীরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাকে বন্দি রাখার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বিবৃতি চান তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। মহারাষ্ট্রের কৃষক সমস্যা নিয়ে সংসদের বাইরে বিক্ষোভ শুরু করেন শিবসেনা সাংসদরা। যদিও লোকসভা স্পিকার ওম বিড়লা মুলতুবি প্রস্তাব খারিজ করে দেন।

কাশ্মীর প্রসঙ্গে কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী বলেন, কেন বিরোধী নেতাদের কাশ্মীরে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে? কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতারা নজরবন্দি। আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে নেই।

দফায় দফায় বিরোধীরা কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে স্লোগান তুলতে থাকেন।