জামিনে বের হয়েই ধর্ষণের শিকার তরুণীর গায়ে আগুন দিল ধর্ষকরা

একের পর এক ধর্ষণ-হত্যায় যখন উত্তাল ভারত ঠিক তখনই ঘটেছে আরও একটি অমানবিক ঘটনা। আদালতে সাক্ষ্য দিতে যাওয়ার পথে ধর্ষণের শিকার এক তরুণীর গায়ে আগুন দিয়েছে ধর্ষকরা।

প্রায় ৯০ শতাংশ দগ্ধ অবস্থায় ভিকটিকে ভর্তি করানো হয়েছে লখনউয়ের একটি হাসপাতালে। তাঁকে বাঁচানোর শেষ চেষ্টা চালাচ্ছেন চিকিৎসকেরা।

উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ে গত মার্চে পাঁচজন মিলে ধর্ষণ করে ওই তরুণীকে। ভিকটিমের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তিন জনকে গ্রেপ্তার করে। বাকি দু’জন এখনও ফেরার।

জামিনে জেল থেকে বেরিয়ে দুই অভিযুক্ত বৃহস্পতিবার তাঁদের বন্ধুদের নিয়ে যান ভিকটিমের গ্রামে। ওই সময় ভিকটিম ছিলেন রেল স্টেশনের কাছে। মা, বাবার সঙ্গে ট্রেনে রায়বঢ়েলীতে যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। আদালতে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য।

তার আগে স্টেশনে গিয়ে তাঁরা ভিকটিমকে জোর করে টেনে নিয়ে যান গ্রামের বাইরে একটি ধানখেতে। তার পর তাঁরা গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে যায়।