এনকাউন্টারের পর পুলিশের ওপর পুস্পবৃষ্টি

ভারতের হায়দরাবাদে ২৬ বছরের তরুণীকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল হাইওয়ের উপর। সেই একই স্থানে চার অভিযুক্তের মৃত্যু হয়েছে এনকাউন্টারে। এ ঘটনার পর থেকেই প্রশংসায় ভাসছে হায়দরাবাদ পুলিশ।

সাধারণ মানুষের একটা বড় অংশ বলছে, বিচার পেয়েছেন ভিকটিম। এভাবেই নজিরবিহীন শাস্তি হওয়া উচিৎ বলে মনে করছেন অনেকে। তবে পুলিশ কীভাবে এনকাউন্টারে চার বিচারাধীন বন্দিকে মারল, তা নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন।

শুক্রবার সকালে খবর প্রকাশ্যে আসার পরই পুলিশের প্রশংসায় উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন হায়দরাবাদের মানুষ। পুলিশকে ধন্যবাদ জানাতে ঘটনাস্থলে ছুটেন বহু মানুষ। তাঁরা পুলিশকে ধন্যবাদ দিতে থাকেন। পুলিশ অফিসারদের লক্ষ্য করে ফুল ছুঁড়তে থাকেন তাঁরা। হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানান।

হায়দরাবাদের পুলিশ কমিনশনার দাবি করেছেন, ঘটনার পুনর্নিমাণের জন্য তাদের ওই জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, তখনই তারা অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের গুলিতে চিকিৎসক ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার চার অভিযুক্ত নিহত হয়েছে।

ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা প্রকাশ রেড্ডি বলেছেন, 'আমরা অ্যাম্বুলেন্স ডেকেছিলাম। তবে কোনও রকমের চিকিৎসা সহায়তা পৌঁছানোর আগেই তাদের মৃত্যু হয়'।