পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাকে বিয়ে করলেন মালালা

নারী শিক্ষা অধিকারকর্মী ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কারজয়ী মালালা ইউসুফজাই আসার মালিক নামে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডেরেএক কর্মকর্তাকে বিয়ে করেছেন। টুইট করে মালালা নিজেই জানিয়েছেন বিয়ের খবর।


মালালা জানান, ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।


বরের সঙ্গে কয়েকটি ছবি টুইটারে পোস্ট করে মালালা লেখেন, আজ আমার জীবনের জন্য একটি মূল্যবান দিন। আসার এবং আমি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি। বার্মিংহামে আমাদের পরিবারের সঙ্গে একটি ছোট্ট পরিসরে বিয়ের উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল। দয়া করে আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আমরা সামনের যাত্রার জন্য একসঙ্গে হাঁটতে পেরে খুবই খুশি।


এ টুইটের পর থেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানাতে শুরু করেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রাজনীতিবিদ ও মানবাধিকারকর্মীরা।


শুভেচ্ছা জানিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো লেখেন— অভিনন্দন, মালালা ও আসার! সোফি এবং আমি আশা করি আপনি আপনার বিশেষ দিনটি উপভোগ করেছেন।


মালালার বিয়েতে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী জেমিমা গোল্ডস্মিথ। তিনি টুইটবার্তায় বলেন, অভিনন্দন ও মাশাআল্লাহ।


অ্যাপলের নির্বাহী কর্মকর্তা টিম কুক মালালাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে লেখেন— তোমাকে ও আসারকে শুভেচ্ছা। নতুন জীবন শুরুর জন্য তোমাদের মঙ্গল কামনা করছি।


নারী শিক্ষা বিস্তারে কাজ করে যাওয়ায় ২০১২ সালে ১৫ বছর বয়সে তালেবানের হামলার শিকার হন মালালা। তখন তিনি ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান। ২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয় মালালাকে।