ইরানে বিক্ষোভে উসকানির অভিযোগে ৪০ বিদেশী নাগরিক আটক

ক্রমবর্ধমান বিক্ষোভে উসকানির অভিযোগে ইরানে এক অস্ট্রেলিয়ানসহ ৪০ বিদেশী নাগরিককে আটক করা হয়েছে।


২৪ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার বার্তাসংস্থা ‘গার্ডিয়ান’ ইরানের রাষ্ট্রীয় মিডিয়া ‘মেহর নিউজ’ এর প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এমনটি জানায়।


ইরানের বিচার বিভাগের মুখপাত্র মাসুদ সেতায়েশি মঙ্গলবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, এখন পর্যন্ত বিক্ষোভে জড়িত থাকার জন্য ৪০ বিদেশী নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেতায়েশি গ্রেফতারকৃত সকল বিদেশীর জাতীয়তা প্রকাশ করেননি। তবে তাদের মধ্যে তবে ফ্রান্স, সুইডেন, ইতালি, পোল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস এবং জার্মানির নাগরিক রয়েছেন বলে জানা গেছে।


প্রসঙ্গত, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে পুলিশি হেফাজতে ২২ বছর বয়সী মাশা আমিনীর মৃত্যুর পর দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ চলতে থাকে। মাশাকে হিজাব পরিধান না করার অভিযোগে আটক করেছিল দেশটির মোরাল পুলিশ।


এদিকে, অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেছেন যে ইরানি-অস্ট্রেলীয় দ্বৈত নাগরিককে শাসনবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার জন্য গ্রেফতার করা হয়নি, অন্য কারণে হতে পারে। সাম্প্রতিক বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার জন্য গ্রেফতার বা আটক করা হয়েছে— এমন কোনো নাগরিক সম্পর্কে অস্ট্রেলিয়ার সরকার অবগত নয়।


তবে আটকের পর তার নাগরিককে পর সহায়তা করার জন্য ইরান অস্ট্রেলিয়াকে সুযোগ দেয়নি দাবি করে এবং সেজন্য উদ্বেগ প্রকাশ করে এই মুখপাত্র বলেছেন, ইরান অস্ট্রেলিয়ার প্রবেশাধিকার গ্রহণ করতে অস্বীকার করছে। কারণ এটি দ্বৈত নাগরিকত্বকে স্বীকৃতি দেয় না। আমরা তাকে সহায়তা করার এবং কনস্যুলার অ্যাক্সেস নিশ্চিতকরণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।


উল্লেখ্য, ইরানে আটকের প্রায় চার মাস পর নিউজিল্যান্ডের সোশ্যাল মিডিয়ার দুই অ্যাক্টিভিস্টকে গত অক্টোবরে মুক্তি দেওয়া হয় এবং দেশ ছেড়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।